শিরোনাম :

10/trending/recent

Hot Widget

অনুসন্ধান ফলাফল পেতে এখানে টাইপ করুন !

চার উইকেট হারিয়ে বিপদে পড়েছে বাংলাদেশ

দ্বিতীয় ইনিংসে ব্যাট করতে নেমে চার উইকেট হারিয়ে বিপদে পড়েছে বাংলাদেশ। স্কোরবোর্ডে ১৩ রান তুলতেই ফিরে গেছেন মুমিনুল হক, সাদমান ইসলাম, মোহম্মদ মিথুন ও ইমরুল কায়েস। সেখান থেকে মুশফিকুর রহিম ও মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ ইনিংস মেরামতের চেষ্টা করছেন।
ইশান্ত শর্মা এবার নিজের তৃতীয় শিকারে পরিণত করেন ইমরুল কায়েসকে। ১৫ বল খেলে ৫ রান করে ফিরেন তিনি। চা বিরতির আগে বাংলাদেশ দুটি উইকেট হারিয়েছিল। সেই দুটি উইকেট নিয়েছিলেন ইশান্ত শর্মা। এছাড়া মোহাম্মদ শামীর বলে শর্ট মিডউইকেটে উমেশ যাদবের কাছে ক্যাচ দিয়ে ফিরেন মিথুন। ১২ বল খেলে ৬ রান করে যান তিনি।

দ্বিতীয় ইনিংসে ব্যাট করতে নেমে শুরুতেই জোড়া উইকেট হারায় বাংলাদেশ। ইশান্ত শর্মার বল মুমিনুল হকের ব্যাটের কানায় লেগে উপরে উঠে যায়। সহজেই বলটি তালুবন্দি করেন ঋদ্ধিমান সাহা। সাদমানের মতো শূন্য রানে ফিরে যান টাইগার ক্যাপ্টেন।

ইশান্ত শর্মার ‍মিডল স্ট্যাম্পের বল সাদমান ইসলামের প্যাডে লাগে। ফিল্ডারদের জড়ালো আবেদনে আউট দেন আম্পায়ার। কিন্তু রিভিউ নিয়েও বাঁচতে পারেননি সাদমান। শূন্য রানে ফিরে যান তিনি। ইশান্ত শর্মার

এর আগে বাংলাদেশের বিপক্ষে কলকাতা টেস্টের দ্বিতীয় দিনে ৯ উইকেট হারিয়ে ৩৪৭ রান সংগ্রহ করে প্রথম ইনিংস ঘোষণা করে ভারত। ফলে সফরকারীদের থেকে ২৪১ রানে এগিয়ে রয়েছে টিম ইন্ডিয়। প্রথম ইনিংসে ৩০ দশমিক ৩ ওভার ব্যাট করে মাত্র ১০৬ রানে অলআউট হয় টাইগাররা।
ভারতের পক্ষে অধিনায়ক বিরাট কোহলি ১৯৪ বলে ১৮ চারে করেন ১৩৬ রান করেন। এটি কোহলির ক্যারিয়ারের ২৭তম টেস্ট সেঞ্চুরি, যার ২০টিই করলেন অধিনায়ক হিসেবে।

এছাড়া চেতাশ্বর পুজারা ৫৫, আজিঙ্কা রাহানে ৫১ ও রোহিত শর্মা ২১ রান করেন । বাংলাদেশের হয়ে আল আমিন তিনটি, ইবাদত হোসেন তিনটি ও আবু জায়েদ দুটি উইকেট পান।

দিবা-রাত্রির টেস্টের গোলাপি বলে ভারতের বিপক্ষে টেস্টের প্রথম দিন ৩০ দশমিক ৩ ওভার ব্যাট করে মাত্র ১০৬ রানে অলআউট হয় টাইগাররা। বাংলাদেশী ব্যাটসম্যানদের ব্যর্থতা ও নিজ বোলারদের দুর্দান্ত পারফরমেন্সে প্রথম দিনই ব্যাট হাতে নামার সুযোগ পায় ভারত।

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

0 মন্তব্যসমূহ
* Please Don't Spam Here. All the Comments are Reviewed by Admin.

Top Post Ad

Below Post Ad