শিরোনাম :

10/trending/recent

Hot Widget

অনুসন্ধান ফলাফল পেতে এখানে টাইপ করুন !

সেই বৃদ্ধাকে ঘর তৈরির জমি দিলেন ছাত্রলীগ নেতা



সেই বৃদ্ধাকে ঘর তৈরির জমি দিলেন ছাত্রলীগ নেতা

মো. আবু নাঈম
পঞ্চগড়ের আটোয়ারী উপজেলার মির্জাপুর এলাকার বাসিন্দা শতবর্ষী ইশারন নেছাকে ঘর  তৈরির জায়গা দিলেন ছাত্রলীগ নেতা রবিউল ইসলাম সূর্য।
গত ৬ মে বৃদ্ধা ইশারনকে উপজেলার মির্জাপুর ইউনিয়ন পরিষদের সামনে ফেলে রাখে সন্তানেরা। খবর পেয়ে পুলিশ উদ্ধার করে মেয়ের বাড়িতে তুলে দেন তাকে।
বৃদ্ধা ইশারন স্বাধীনতার পরপরই হারিয়েছেন স্বামী মজত আলীকে। নিজের চার মেয়েকে বিয়ে দিয়ে থাকতেন সৎ ছেলের কাছে। সৎ ছেলে মারা গেলে সর্বস্ব বিক্রি করে চলে যান একই ইউনিয়নের পাখরতলা গ্রামে মেয়ে আজিমার বাড়িতে। ১৫-১৬ বছর ধরে সেখানেই ছিলেন। ভিক্ষাবৃত্তি করে জীবিকা নির্বাহ করতেন তিনি। বয়সের ভারে এখন তেমন হাঁটতেও পারেন না। এর মধ্যে মাসখানেক আগে এক মেয়ের বাড়িতে বেড়াতে গিয়ে পড়ে পায়ে আঘাত পান তিনি। এরপর থেকে চলাচল করতে পারেন না এই বৃদ্ধা। এই অবস্থায় শয্যাশায়ী মাকে দেখভালে অসুবিধা হওয়ায় মেয়ে আজিমা তাকে রেখে আসেন সৎ ভাই জাহিরুলের বাড়িতে। জাহিরুল ও তার ছেলে সলেমান বৃদ্ধাকে এক মাস দেখাশুনা করার পর তাকে আবার রেখে যান আজিমার বাড়ি। কয়েকদিন পর আজিমা আবার রেখে আসে জাহিরুলের বাড়ি। এভাবে এক পর্যায়ে তারা তাদের মাকে মির্জাপুর ইউনিয়ন পরিষদ চত্বরে রেখে চলে যায়। রাত হলেও তাকে কেউ বাড়িতে নেয়নি। স্থানীয়দের নজরে এলে কয়েকজন যুবক বৃদ্ধার খাবারের ব্যবস্থা করেন। পরে ইউপি চেয়ারম্যান ও ইউপি সদস্যরা তার মেয়ে আজিমার বাড়িতে পাঠানোর ব্যবস্থা করেন। কিন্তু বৃহস্পতিবার দুপুরে আজিমা আবারও তার মাকে মির্জাপুর উত্তরা বাজারের একটি দোকানের সামনে রেখে চলে যায়। সেখানে বসে বসে কাঁদতে থাকেন ওই বৃদ্ধা। সন্ধ্যায় ঝড় বৃষ্টি শুরু হলেও কোনো সন্তানই তাকে ফিরিয়ে নেয়নি।
খবর পেয়ে দ্রুত ঘটনাস্থলে পৌঁছায় পুলিশ। এরপর মির্জাপুর বাজারের মাদ্রাসার বারান্দা থেকে বৃদ্ধা ইশারনকে উদ্ধার করে মেয়ে আজিমা বেগমের বাড়িতে তুলে দেন তারা।
পরে জেলা পুলিশ ও জেলা প্রশাসন ওই বৃদ্ধাকে খাদ্য সহায়তাসহ ঘর করার জন্য দুই বান ঢেউ টিন দেয়। সঙ্গে কুড়ি হাজার টাকাও। কিন্তু টিন, টাকা পেয়েও ঘর করার জায়গা ছিলো না বৃদ্ধা ইশারনের।
এ অবস্থায় পাশে দাঁড়িয়েছেন আটোয়ারী উপজেলা ছাত্রলীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক রবিউল ইসলাম সূর্য। দিয়েছেন ঘর উঠানোর জন্য জমি।
রবিউল ইসলাম সূর্য জানান, মানুষ মানুষের জন্য। তিনি সেই দায়িত্বটাই পালন করেছেন মাত্র। তিনি বৃদ্ধাকে মাথা গোঁজার এক টুকরো জমি দিয়েছেন।

ঢাকা/বকুল


from Risingbd Bangla News https://ift.tt/3dEy3rJ
via IFTTT

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

0 মন্তব্যসমূহ
* Please Don't Spam Here. All the Comments are Reviewed by Admin.

Top Post Ad

Below Post Ad