শিরোনাম :

10/trending/recent

Hot Widget

অনুসন্ধান ফলাফল পেতে এখানে টাইপ করুন !

‘আমাকে ঝরে যেতে দেবেন না, আমি পড়তে চাই’

‘আমাকে ঝরে যেতে দেবেন না, আমি পড়তে চাই’

মাদারীপুর প্রতিনিধি

‘‘স্যার, আমার অমতে জোর করে বিয়ে দিচ্ছে, আমি আরো পড়ালেখা করতে চাই, আমাকে ঝরে যেতে দেবেন না।’’

এই আকুতি মাদারীপুরের শিবচর উপজেলার সরকারি বরহামগঞ্জ কলেজে পড়ুয়া এক ছাত্রীর। আর ফোনে এই আকুতি শুনে রোববার (৩ মে) রাত সাড়ে ১০টার দিকে তার বাড়িতে গিয়ে ওই ছাত্রীকে দাদির ঘরে ঠাঁই করে দেন শিবচর থানার ওসি।

স্নাতক (পাস) প্রথমবর্ষে অধ্যয়নরত ওই ছাত্রীর বাবা-মা মেয়ের অমতে উপজেলার বাশকান্দি এলাকার এক প্রবাসীর সঙ্গে বিয়ে ঠিক করেন। মেয়েটি বিয়েতে রাজি না হওয়ায় কয়েক দিন ধরে তার উপর জোর করে আসছিলেন পরিবারের সদস্যরা।

রোববার রাত ১০টার দিকে ওই ছাত্রী তার স্কুলশিক্ষক বড় চাচার ঘরে আশ্রয় নেন। সেখানেও বাবা-মা তার উপর চড়াও হন। এ সময় তিনি শিবচর থানার ওসিকে ফোনে বিষয়টি জানান।

পরে শিবচর থানার ওসি আবুল কালাম আজাদ সেখানে গিয়ে পরিবারের সদস্যদের সঙ্গে আলোচনা করেন।

মেয়েটির চাচা জানান, তার ভাতিজি সবেমাত্র ডিগ্রি প্রথমবর্ষে পড়ে। খুবই মেধাবী ছাত্রী। এই বিয়েতে তার নিজেরও মত নেই।

পরে ওসি মেয়েটির বাবা-মাকে বিষয়টি বুঝিয়ে বললে তারা মেয়ের অমতে বিয়ের চেষ্টা করবেন না বলে জানান এবং তার পড়াশুনা চালিয়ে নেওয়ার বিষয়ে সম্মত হন। 

ওসি জানান, অভিভাবকরা মেয়েটিকে এখন বিয়ে না দেওয়ার ব্যাপারে সম্মত হয়েছেন।  

 

বেলাল/বকুল



from Risingbd Bangla News https://ift.tt/3dapHrE
via IFTTT

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

0 মন্তব্যসমূহ
* Please Don't Spam Here. All the Comments are Reviewed by Admin.

Top Post Ad

Below Post Ad