শিরোনাম :

10/trending/recent

Hot Widget

অনুসন্ধান ফলাফল পেতে এখানে টাইপ করুন !

ক্যানসারের কাছে হার মেনেছেন যে বলিউড তারকারা



ক্যানসারের কাছে হার মেনেছেন যে বলিউড তারকারা

বিনোদন ডেস্ক
সম্প্রতি ক্যানসারে আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন বলিউডের জনপ্রিয় দুই অভিনেতা ঋষি কাপুর ও ইরফান খান। তাদের হারিয়ে শোকাহত তাদের ভক্ত ও ঘনিষ্ঠজনরা। কিন্তু অতীতে এই দুরারোগ্য ব্যাধির কাছে হার মেনেছেন কয়েকজন তারকা অভিনয়শিল্পী।
নার্গিস দত্ত: বলিউড অভিনেত্রী নার্গিস দত্ত। বারসাত, বাবুল, আওয়ারা, শ্রী ৪২০, মাদার ইন্ডিয়া, রাত অউর দিন’র মতো জনপ্রিয় সিনেমায় অভিনয় করেছেন। তার আরেক পরিচয় তিনি অভিনেতা সুনীল দত্তের স্ত্রী ও অভিনেতা সঞ্জয় দত্তের মা। ১৯৮১ সালের ৩ মে ক্যানসারে আক্রান্ত হয়ে তিনি মৃত্যুবরণ করেন। এর তিন দিন পর মুক্তির পায় সঞ্জয় দত্তের প্রথম সিনেমা রকি। ছেলের প্রথম সিনেমা দেখার ইচ্ছা থাকলেও তা অপূর্ণই থেকে যায় নার্গিস দত্তের।
ফিরোজ খান: আসল নাম ছিল জুলফিকার আলী শাহ খান। কিন্তু বলিউডে তিনি ফিরোজ খান নামেই পরিচিত। অউরাত, সফর, মেলা, উপাসনা, ওয়েলকামসহ অনেক জনপ্রিয় সিনেমায় অভিনয় করেছেন। তিনি অভিনেতা ফারদিন খানের বাবা। ২০০৯ সালে ক্যানসারে আক্রান্ত হয়ে তিনি মারা যান।
রাজেশ খান্না: বলিউডের ইতিহাসে প্রথম সুপারস্টার রাজেশ খান্না। রোমান্টিক সিনেমার নায়ক হিসেবে ব্যাপক জনপ্রিয় ছিলেন। ১৯৬০ ও ৭০ এর দশকে তার অভিনীত বেশ কিছু সিনেমা জনপ্রিয়তা পায়। তার আরাধনা, ইত্তেফাক, সাচ্চা ঝুটা, সফর, কাটি পতঙ্গ, আনন্দ, অমর প্রেম বলিউডের ইতিহাসে অন্যতম জনপ্রিয় সিনেমা। লিভারের ক্যানসারে আক্রান্ত হয়ে ২০১২ সালের ১৮ জুলাই তিনি মৃত্যুবরণ করেন।
বিনোদ খান্না: ৭০ ও ৮০ দশকে জনপ্রিয়তা পেয়েছিলেন বিনোদ খান্না। প্রথমদিকে নেতিবাচক ও ছোটখাটো চরিত্রে অভিনয় করলেও পরবর্তীতে কেন্দ্রীয় চরিত্রে অভিনয়ের সুযোগ পান তিনি। মন কা মীত সিনেমার মাধ্যমে সিনেমায় অভিষেক ঘটে তার। মেরা গাঁও মেরা দেশ, ইমতিহান, ইনকার, অমর আকবর অ্যান্থনি, কুরবানি, দয়াবান সিনেমায় অভিনয়ের মাধ্যমে তিনি বেশ জনপ্রিয় লাভ করেছিলেন। হাত কি সাফাই সিনেমায় পার্শ্ব চরিত্রে অভিনয় করে ফিল্মফেয়ার অ্যাওয়ার্ড পেয়েছিলেন তিনি। ২০১৭ সালে ২৭ এপ্রিল ক্যানসারে আক্রান্ত মারা যান বিনোদ খান্না।
ইরফান খান: নিউরোন্ডোক্রেইন নামে বিরল ক্যানসারে ভুগছিলেন ইরফান খান। ২০১৮ সালে প্রথম এই রোগে আক্রান্ত হওয়ার খবর জানান তিনি। পরবর্তী সময়ে চিকিৎসা নিতে যুক্তরাজ্যে যান। এরপর চিকিৎসার জন্য দীর্ঘদিন সেখানেই অবস্থান করেন। পাশাপাশি সিনেমা থেকেও দূরে ছিলেন। তবে বিরতি ভেঙে গত মার্চে মুক্তি পায় তার আংরেজি মিডিয়াম সিনেমাটি। গত ২৯ এপ্রিল শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন এই অভিনেতা।
ঋষি কাপুর: ২০১৮ সালে ঋষি কাপুরের ক্যানসার ধরা পড়ে। এরপর চিকিৎসার জন্য নিউইয়র্ক যান। প্রায় এক বছর সেখানে চিকিৎসা শেষে ২০১৯ সালের সেপ্টেম্বরে ভারতে ফেরেন। এরপর প্রায়ই অসুস্থতার জন্য তার হাসপাতালে ভর্তির খবর পাওয়া যেত। গত ৩০ এপ্রিল পৃথিবী থেকে বিদায় নিয়েছেন ঋষি কাপুর।

ঢাকা/মারুফ


from Risingbd Bangla News https://ift.tt/3fwDz1u
via IFTTT

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

0 মন্তব্যসমূহ
* Please Don't Spam Here. All the Comments are Reviewed by Admin.

Top Post Ad

Below Post Ad