শিরোনাম :

10/trending/recent

Hot Widget

অনুসন্ধান ফলাফল পেতে এখানে টাইপ করুন !

লংগদু উপজেলায় কমতে শুরু করেছে শীতের সবজির দাম

বিপ্লব ইসলাম, লংগদু প্রতিনিধি : রাংগামাটি জেলার লংগদু উপজেলায় বেশির ভাগ হাট বাজারে কাঁচামালের দোকান গুলোতে কমতে শুরু করেছে শীতের সবজির দাম। ক্রেতাদের নাগালের মধ্যে নিত্যপণ্য শীতের সবজিতে স্বস্তির নিঃশ্বাস। 

যে সময় সরবরাহ ভালো থাকে তখন স্বস্তির আর যখন সরবরাহ কম থাকে তখন আপনা আপনি বেড়ে যায় নিত্য প্রয়োজনীয় বিভিন্ন পণ্যের দাম। তারই ধারাবাহিকতায় লংগদু উপজেলার বিভিন্ন কাঁচাবাজার গুলোতে কমতে শুরু করেছে বিভিন্ন ধরনের শীতকালীন সবজির দাম।

লংগদু  উপজেলার,মাইনীমূখ বাজার,লংগদু বাজার,করল্যাছড়ি বাজারসহ বেশ কয়েকটি কাঁচাবাজারে সরেজমিনে গিয়ে দেখা গেছে, সপ্তাহের ব্যবধানে সরবরাহ বেড়েছে শীতকালীন সবজির। যেখানে বাঁধাকপি, শিম, ফুলকপি, গাজর, লাউ, কাঁচা টমেটো, পাকা টমেটো, মুলা, বেগুনসহ নানা রকমের সবজিতে বাজার ভর্তি। পর্যাপ্ত সরবরাহ থাকায় আগের সপ্তাহের তুলনায় ৮ থেকে ১০ টাকা পর্যন্ত কমেছে বিভিন্ন ধরনের সবজির দাম।

অনেকটা কমে এসেছে শীতকালীন জনপ্রিয় সবজি নতুন শিমের দাম। ২০ জানুয়ারী বাজারে প্রতি কেজি শিম বিক্রি হচ্ছে ৩০ থেকে ৪০ টাকা দরে। আগের চেয়ে কিছুটা সরবরাহ বেড়েছে ফুলকপি ও বাঁধাকপিরও। এতে দামও কিছুটা কমে এসেছে এই সপ্তাহে। বাজার ও আকারভেদে ফুলকপি ২০ থেকে ৩০ টাকা এবং বাঁধাকপি ২০ থেকে ৩৫ টাকা পিস বিক্রি হচ্ছে।

 এছাড়া বেগুন প্রতি কেজি ৩০ থেকে ৪০ টাকা, মুলা কেজি ১৫ থেকে ২০ টাকা, কাঁচকলা প্রতি হালি ২২ থেকে ২৫ টাকা, লাউ আকারভেদে প্রতি পিস ২০ থেকে ৩০ টাকা, ঝিঙা ২৫ থেকে ৩০ টাকা কেজিতে বিক্রি হচ্ছে।

পাকা টমেটো বিক্রি হচ্ছে কেজি প্রতি ৩০ থেকে ৪০ টাকা দরে। তবে প্রচুর পরিমানে কাঁচা টমেটোও বাজারে আসতে শুরু করেছে। এসব টমেটোর দাম একটু কম। ২০ থেকে ২৫ টাকা কেজি দরে বিক্রি হচ্ছে। এদিকে ২০ থেকে ২৫ টাকা কেজি দরে বিক্রি হচ্ছে গাজর। তবে পাইকারি বাজার ছাড়া সবকটি খুচরা বাজারেই মরিচ বিক্রি হচ্ছে প্রতি কেজি ৮০থেকে ১০০টাকা দরে। 

এছাড়া দেশি পেঁয়াজ ৪৫ থেকে৫০ টাকা এবং আমদানী করা পেঁয়াজ ৫০টাকায় বিক্রি হতে দেখা যায়। উপজেলার অন্যতম গুরুত্বপূর্ণ সবজির বাজার গুলশাখালী চৌমুহনী বাজার, বৈরাগী বাজার,ভাসান্যাদম বাজার, বাইট্রাপাড়া বাজার,বারবুনিয়া বাজারসহ বিভিন্ন বাজারে কমতে শুরু করেছে শীতের বিভিন্ন সবজির দাম। 

বৃহস্পতিবার ২০ জানুয়ারী উপজেলার সাপ্তাহিক হাটে গত সপ্তাহের তুলনায় প্রায় প্রতিটি সবজির দাম কমেছে বলে জানিয়েছেন অনেক ক্রেতা। করল্যাছড়ি বাজারে সাপ্তাহিক হাটে আশা সদরের এক চাকমা উপজাতীয় ক্রেতা আমাদের  বলেন, গত সপ্তাহের তুলনায় অনেকটাই কমেছে বিভিন্ন সবজির দাম। তবে আশা করছি আগামী শনিবার সাপ্তাহিক হাটে সরবরাহ বাড়লে আরো কমবে বিভিন্ন সবজির দাম।

উপজেলার বিভিন্ন বাজার ঘুরে দেখা গেছে একই চিত্র। অপরদিকে উপজেলার প্রত্যেকটি বাজারে প্রতিদিনই ক্রেতা মুখর থাকে।বাইট্রাপাড়া বাজারের একজন কাঁচামাল ব্যবসায়ী জানান,গত সপ্তাহের তুলনায় পাইকারী  দোকান গুলোতে বিভিন্ন সবজির দাম কমার সাথে সাথে আমাদের উপজেলার বাজারেও কমতে শুরু করেছে বিভিন্ন সবজির দাম। ‘এতে বেশ খুশি ক্রেতারা’।

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

0 মন্তব্যসমূহ
* Please Don't Spam Here. All the Comments are Reviewed by Admin.

Top Post Ad

Below Post Ad