কালীগঞ্জে পরকীয়া সন্দেহে যুবককে পিটিয়ে হত্যার অভিযোগ - Purbakantho

শিরোনামঃ

শনিবার, ২৬ ফেব্রুয়ারী, ২০২২

কালীগঞ্জে পরকীয়া সন্দেহে যুবককে পিটিয়ে হত্যার অভিযোগ

সামসুল হক জুয়েল, গাজীপুর প্রতিনিধি: গাজীপুরের কালীগঞ্জে পরকীয়া সম্পর্ক রয়েছে এমন সন্দেহে সোহেল ভূঁইয়া (৩৮) নামে এক যুবককে পিটিয়ে হত্যার অভিযোগ উঠেছে প্রতিবেশীদের বিরুদ্ধে। 

শনিবার (২৬ ফেব্রুয়ারী) সকাল ৮টার দিকে চিকিৎসাধীন অবস্থায় হাসপাতালে তার মৃত্যু হয়। নিহত সোহেল ভূঁইয়া বাহাদুরসাদী ইউনিয়নের ২নং ওয়ার্ডের সাবেক সদস্য ও বাজার কমিটির সাবেক সাধারণ সম্পাদক দক্ষিণবাগ এলাকার মৃত ছালাম ভূঁইয়ার ছেলে। 

নিহতের ভাই সোহাগ মিয়ার দাবী এলাকার মৃত মঞ্জুর ভূঁইয়ার ছেলে জুবায়ের ভূঁইয়া (২২) ও মেয়ে জেমি ভূঁইয়া (৩০), আবদুল মজিদের ছেলে শুকুর আলী (৩৮) এবং জামালপুর এলাকার ফিরোজ শেখের ছেলে মামুন শেখ (৩৫)। এছাড়াও অজ্ঞাত আরও ৪/৫ জন। মামুন শেখ মঞ্জুর ভূঁইয়ার মেজো মেয়ে জেরিন ভূঁইয়ার স্বামী। 

নিহতের ভাই সোহাগ মিয়া ও স্থানীয়রা বলেন, শুক্রবার রাত ৯টার দিকে দক্ষিণবাগ এলাকার মোতালেবের বাড়িতে সোহেল ভূঁইয়া অবস্থান করছিল। সে সময় অভিযুক্তরা সোহেলকে ধরে মঞ্জুরের (তাদের) বাড়ি নিয়ে যায়। তাদের অভিযোগ ছিল সোহেল মঞ্জুর ভূঁইয়ার মেজো মেয়ে জেরিন ভূঁইয়ার সঙ্গে পরকীয়া সম্পর্কে লিপ্ত। তাই অভিযুক্তরা সোহেলকে গাছের সঙ্গে বেঁধে মুখে গামছা পেঁচিয়ে মারধর করে ও পিটিয়ে হাত পা-ভেঙ্গে ফেলে। 

পরে স্থানীয়দের মাধ্যমে খবর পেয়ে রাত ১টার দিকে কালীগঞ্জ থানার সহকারী উপপরিদর্শক (এএসআই) আজাদ পারভেজসহ পুলিশ সদস্যরা উপস্থিত হয়ে সোহেলকে উদ্ধার করে। `এরপর অভিযুক্তরা সোহলকে কালীগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে ভর্তি করে। চিকিৎসাধীন অবস্থায় সকাল আটটার দিকে তার মৃত্যু হয়'।

কালিগঞ্জ থানার অফিসার ইন-চার্জ (ওসি) মো. আনিসুর রহমান ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য মর্গে প্রেরণ করা হয়েছে। 

কোন মন্তব্য নেই:

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন