শিরোনাম :

10/trending/recent

Hot Widget

অনুসন্ধান ফলাফল পেতে এখানে টাইপ করুন !

আ.লীগ বাংলাদেশ জন্মের শিকড় থেকে এক চুলও বিচ্যুত হবে না

ঢাকা: আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের বলেছেন, নির্বাচনি রাজনীতি যখন আসে তখন জোটের বিরুদ্ধে বাধ্য হয়েই জোট করতে হয়। সেখানে কৌশল অবলম্বন করতে হয়। কিন্তু আওয়ামী লীগ বাংলাদেশ জন্মের শিকড় থেকে এক চুলও বিচ্যুত হবে না। আমাদের আদর্শ অসাম্প্রদায়িক মানবতাবাদ। ‘এই পতাকা আমরা উঁচিয়ে রাখবই।,

রোববার (২২ মে) সন্ধ্যায় বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সাংস্কৃতিকবিষয়ক উপকমিটি আয়োজিত জাতীয় শিল্পকলা একাডেমিতে অনুষ্ঠিত ‘সাংস্কৃতিক আড্ডায়’ তিনি এসব কথা বলেন।,

ওবায়দুল কাদের বলেন, ‘আমাদের আস্থার ঠিকানা শেখ হাসিনার নেতৃত্বে সামনের দিকে এগিয়ে যাব। অন্ধকার থেকে আলোর পথে বঙ্গবন্ধুর সোনার বাংলার স্বপ্ন পূরণে এগিয়ে যাব। ইউক্রেন যুদ্ধের যে ইমপ্লিকেশন, ‘সেই ইমপ্লিকেশন থেকে আমরা বিচ্ছিন্ন কোনো দ্বীপ নই।’

তিনি বলেন, ‘ইংল্যান্ডে ৪১ বছরের মধ্যে প্রথম মুদ্রাস্ফীতি ৯ শতাংশ হয়েছে। আমাদের এখানে এখনও ৬ দশমিক ২০ শতাংশ। আরও বাড়তে পারে। ডলারের মূল্য বৃদ্ধি পাবে। ‘এসব বাস্তবতা থেকে নিজেদের লুকিয়ে রেখে পালিয়ে বাঁচার কোনো উপায় নেই। কাজেই সকলেই সতর্ক থাকবেন।’

সংস্কৃতি প্রতিমন্ত্রীর দৃষ্টি আকর্ষণ করে ওবায়দুল কাদের বলেন, ‘স্বাধীনতা স্তম্ভের ভিত্তিপ্রস্তর করা হলেও এখনো কেন স্বাধীনতা স্তম্ভের উদ্বোধন হলো না? এটা সংস্কৃতির সবার প্রশ্ন? যেটা নেত্রী এই শিল্পকলায় এসে ঘোষণা দিয়েছিলেন। ‘এখনো কেন থেকে স্বাধীনতা স্তম্ভের উদ্বোধন হলো না?’

সংস্কৃতির উন্নয়নে বিভিন্ন উদ্যোগ বাস্তবায়নের প্রসঙ্গ তুলে ওবায়দুল কাদের বলেন, ‘এখান থেকে (শিল্পকলা একাডেমি) জাতীয় জাদুঘর, চারুকলা সব মিলিয়ে নেত্রী ঘোষণা দিয়েছিলেন এর নাম করা হবে সোনার বাংলা সংস্কৃতি বলয়? সেই বলয়ের অবস্থা এখনো আমরা দেখতে পেলাম না? ‘কাজেই এ ব্যাপারে উদ্যোগ নিতে হবে।’

তিনি বলেন, ‘বিএনপি যদি নির্বাচনি ঐক্যজোট করে আমাদেরও করতে হচ্ছে। স্বাভাবিক কারণে বাংলাদেশে সাইকোলজি ভোটার। আমরা তো জামায়াতের সঙ্গে ঐক্য করছি না। আছেই দুয়েকটি দল, তাদের সঙ্গে ঐক্য করতে হবে। পরবর্তী সময়ে কী হবে আমি জানি না। ‘এই সময়ে আমি প্রেডিকশন করতে পারব না।’

সাংস্কৃতিক আড্ডায় উপস্থিত ছিলেন সংস্কৃতিবিষয়ক প্রতিমন্ত্রী কে এম খালেদ, সাংস্কৃতিকবিষয়ক উপকমিটির চেয়ারম্যান নাট্যজন আতাউর রহমান, সদস্য সচিব অসীম কুমার উকিল, শিল্পকলা একাডেমির মহাপরিচালক লিয়াকত আলী লাকি,‘ সংসদ সদস্য সিমিন হোসেন রিমি।,

এ সময় দর্শক সারিতে আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য বেগম মতিয়া চৌধুরী, যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক আ ফ ম বাহাউদ্দীন নাছিম, সাংগঠনিক সম্পাদক মির্জা আজম, প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক ড. আবদুস সোবহান গোলাপ, দফতর সম্পাদক ব্যারিস্টার বিপ্লব বড়ুয়া, বিজ্ঞান ও প্রযুক্তিবিষয়ক সম্পাদক আব্দুস সবুর, শিক্ষা ও মানবসম্পদবিষয়ক সম্পাদক সামছুন্নাহার চাঁপাসহ সাংস্কৃতিক অঙ্গনের ব্যক্তিবর্গ উপস্থিত ছিলেন।,

from Sarabangla https://ift.tt/MoZpXL8

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

0 মন্তব্যসমূহ
* Please Don't Spam Here. All the Comments are Reviewed by Admin.

Top Post Ad

Below Post Ad