হজযাত্রীদের পাসপোর্টের মেয়াদ থাকতে হবে জানুয়ারি পর্যন্ত - Purbakantho

শিরোনামঃ

মঙ্গলবার, ১৭ মে, ২০২২

হজযাত্রীদের পাসপোর্টের মেয়াদ থাকতে হবে জানুয়ারি পর্যন্ত

ঢাকা: চলতি বছরে হজ পালনে ইচ্ছুক মুসল্লিদের পাসপোর্টের মেয়াদ থাকতে হবে আগামী বছরের ৪ জানুয়ারি পর্যন্ত। যাদের ওই সময় পর্যন্ত পাসপোর্টের মেয়াদ নেই, তাদের নতুন পাসপোর্ট করতে হবে। পাশাপাশি পাসপোর্টে হজযাত্রীর জাতীয় পরিচয়পত্র বা জন্ম নিবন্ধন সঠিকভাবে উল্লেখ রয়েছে কি না, তা নিশ্চিত করতে হবে।

সোমবার (১৬ মে) ধর্ম বিষয়ক মন্ত্রণালয় থেকে জারি করা এক বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়েছে। বিজ্ঞপ্তিতে আরও বলা হয়েছে, সরকারি ও বেসরকারি উভয় ব্যবস্থাপনার অধীন ২০২০ সালে নিবন্ধিত হজযাত্রীদের মধ্যে যাদের পাসপোর্টের মেয়াদ শেষ হয়েছে অথবা পাসপোর্ট পরিবর্তন করা হয়েছে, তাদের পাসপোর্টের তথ্য হালনাগাদের জন্য কিছু করণীয় অনুসরণ করতে হবে।,

সরকারি ব্যবস্থাপনার হজযাত্রীদের ক্ষেত্রে করণীয় তুলে ধরে বলা হয়েছে— নিবন্ধিত হজযাত্রীরা নিবন্ধন পয়েন্ট/কেন্দ্রের মাধ্যমে (পাসপোর্ট চেঞ্জ অপশন ব্যবহার করে) পাসপোর্ট পরিবর্তনের আবেদন করে তথ্য হালনাগাদ করবেন; এবং প্রাক-নিবন্ধিত ব্যক্তি নিবন্ধনের জন্য মনোনীতদের ন্যূনতম ২০২৩ সালের ৪ জানুয়ারি পর্যন্ত মেয়াদের হালনাগাদ পাসপোর্টসহ নিবন্ধন পয়েন্ট/কেন্দ্রের মাধ্যমে নিবন্ধন সম্পন্ন করবেন।,

বেসরকারি ব্যবস্থাপনার হজযাত্রী ও সংশ্লিষ্ট এজেন্সির ক্ষেত্রে করণীয় তুলে ধরে বলা হয়েছে— নিবন্ধিত হজযাত্রীরা নিজ নিজ এজেন্সির মাধ্যমে (পাসপোর্ট চেঞ্জ অপশন ব্যবহার করে) ন্যূনতম ২০২৩ সালের ৪ জানুয়ারি মেয়াদ সংবলিত পাসপোর্টের তথ্য হালনাগাদের আবেদন করবেন। `এতে সময় স্বল্পতার কারণে এজেন্সিভিত্তিক হজযাত্রীর সংখ্যা নির্ধারণের সুবিধার্থে পাসপোর্টের মেয়াদ জটিলতাজনিত কারণে হজযাত্রীর প্যাকেজ স্থানান্তর/নিবন্ধন স্থানান্তর কার্যক্রম ব্যহত হবে না।,

এ ক্ষেত্রে দ্বিতীয় করণীয় তুলে ধরে বলা হয়েছে, হজযাত্রীর ভিসাযুক্ত পাসপোর্টের পেছনে (Back Cover) মোয়াল্লেম নম্বর, মক্কা/মদিনার আবাসনের ঠিকানা সংবলিত প্রিন্টেড স্টিকার সংযুক্ত করতে হবে। প্রিন্টেড স্টিকার সংযুক্ত করা সম্ভব না হলে কমপক্ষে হাতে লেখা এসব তথ্য সংযুক্ত করতে হবে। `তা না করলে সংশ্লিষ্ট হজযাত্রীদের জেদ্দা/মদিনা বিমানবন্দর থেকে সৌদি কর্তৃপক্ষ দেশে ফেরত পাঠিয়ে দিতে পারে এবং সংশ্লিষ্ট এজেন্সির হজ কার্যক্রম পরিচালনার অনুমতি বাতিলও করা হতে পারে।,

হজ বিষয়ে যেকোনো হালনাগাদ তথ্য www.hajj.gov.bd ওয়েবসাইট থেকে জানা যাবে।,



from  Sarabangla https://ift.tt/unCjz6l

কোন মন্তব্য নেই:

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন