শিরোনাম :

10/trending/recent

Hot Widget

অনুসন্ধান ফলাফল পেতে এখানে টাইপ করুন !

কৈলাশটিলা ৭ নম্বর কূপ থেকে দিনে মিলবে প্রায় ২ কোটি ঘনফুট গ্যাস

ঢাকা: সিলেটের কৈলাশটিলায় আবিষ্কৃত ৭ নম্বর কূপ থেকে প্রতিদিন প্রায় দুই কোটি ঘনফুট গ্যাস পাওয়া যাবে। সিলেট গ্যাস ফিল্ডস লিমিটেড কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, আগামী ১০ মে’র মধ্যে ওই কূপ থেকে ১ কোটি ৭০ লাখ থেকে ১ কোটি ৯০ লাখ ঘনফুট পর্যন্ত গ্যাস জাতীয় গ্রিডে সরবরাহ করা সম্ভব হবে।

সোমবার (২ মে) বিদ্যুৎ, জ্বালানি ও খনিজ সম্পদ মন্ত্রণালয়ের উপ-প্রধান তথ্য অফিসার মীর মোহাম্মদ আসলাম উদ্দিনের সই করা এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

বিজ্ঞপ্তিতে লা হয়, সিলেটের কৈলাশটিলা ৭ নম্বর কূপে ওয়ার্কওভার করে লোয়ার গ্যাস স্যান্ড জোনে লগিং, পারফোরেশন ও টেস্টিং করে দৈনিক কমপক্ষে ১ কোটি ৭০ থেকে ৯০ লাখ ঘনফুট গ্যাস এবং দৈনিক ১৮৭ ব্যারেল কনডেনসেট আবিষ্কার নিশ্চিত করা হয়েছে। আশা করা হচ্ছে যে, আলোচ্য কূপের বর্তমান জোন বেশ কয়েক বছর গ্যাস উৎপাদন করা সম্ভব হবে। উল্লেখ্য, কৈলাশটিলা ফিল্ডের লোয়ার গ্যাস স্যান্ড জোনের অবশিষ্ট উত্তোলনযোগ্য গ্যাস মজুদ ৭৫৮ বিলিয়ন ঘনফুট। পর্যায়ক্রমে অবশিষ্ট এ গ্যাস বিভিন্ন কূপের মাধ্যমে উৎপাদন করা হবে।

এ প্রসঙ্গে বিদ্যুৎ, জ্বালানি ও খনিজ সম্পদ প্রতিমন্ত্রী নসরুল হামিদ বলেছেন, গ্যাসের অনুসন্ধান কার্যক্রম বাড়ানো হয়েছে। ‘হরাইজোন্টাল ও ভারটিক্যাল দুইভাবেই অনুসন্ধান করার উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে। ডিপ ড্রিলিংকরতে পারলে আরও ভালো ফল পাওয়া যাবে।,

তিনি বলেন, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ১৯৭৫ সালের ৯ আগস্ট বিদেশি শেল অয়েল কোম্পানির কাছ থেকে মাত্র ৪.৫ মিলিয়ন পাউন্ড স্টার্লিং মূল্যে যে পাচঁটি গ্যাস ফিল্ড কিনেছিলেন তার একটি এই কৈলাশটিলা গ্যাস ফিল্ড। ‘বঙ্গবন্ধুর দূরদর্শিতা এভাবে আজও আমাদের জ্বালানি নিরাপত্তাকে সুসংহত করছে।,

উল্লেখ্য যে, সিলেট গ্যাস ফিল্ডস লিমিটেড (এসজিএফএল)-এর কৈলাশটিলা গ্যাস ফিল্ডে এখন পর্যন্ত ৭টি কূপ খনন করা হয়েছে। ‘এর মধ্যে চলমান দুটি কূপ থেকে দৈনিক ২ কোটি ৯০ লাখ ঘনফুট গ্যাস উৎপাদন করে জাতীয় গ্রিডে সরবরাহ করা হচ্ছে।,



from  Sarabangla https://ift.tt/adx0MDH

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

0 মন্তব্যসমূহ
* Please Don't Spam Here. All the Comments are Reviewed by Admin.

Top Post Ad

Below Post Ad