পূর্বধলায় স্কুল ছাত্রীর আপত্তিকর ভিডিও ধারণ, যুবকের বিরুদ্ধে মামলা - Purbakantho

শিরোনামঃ

সোমবার, ২৭ জুন, ২০২২

পূর্বধলায় স্কুল ছাত্রীর আপত্তিকর ভিডিও ধারণ, যুবকের বিরুদ্ধে মামলা

পূর্বধলা (নেত্রকোনা) প্রতিনিধি :

নেত্রকোনার পূর্বধলায় প্রেমের ফাঁদে ফেলে অষ্টম শ্রেণির এক স্কুল ছাত্রীর আপত্তিকর ভিডিও ধারণ করে তা সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে দেওয়ার অভিযোগে সুজল মিয়া (১৯) নামের এক যুবকের বিরুদ্ধে নারী ও শিশু নির্যাতনসহ পর্ণোগ্রাফি আইনে একটি মামলা দায়ের করা হয়েছে।

ভিকটিমের মা বাদী হয়ে গত রবিবার রাতে পূর্বধলা থানায় এই মামলাটি দায়ের করেন।  আজ সোমবার দুপুরে ।ভিকটিমকে ডাক্তারী পরীক্ষার জন্য নেত্রকোনা আধুুনিক সদর হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়েছে।

অভিযুক্ত যুবক সুজল মিয়া উপজেলার ধলামূলগাঁও ইউনিয়নের দেবকান্দা গ্রামের দুলাল মিয়ার ছেলে। ভূক্তভোগী ওই ছাত্রী স্থানীয় একটি উচ্চ বিদ্যালয়ের অষ্টম শ্রেণির শিক্ষার্থী। ,

মামলার বিবরণে জানা গেছে, ভূক্তভোগী ওই ছাত্রীর উপর লোলুপ দৃষ্টি পড়ে প্রতিবেশী রাজমিস্ত্রী দুলাল মিয়ার ছেলে ভাড়ায় মোটরসাইকেল চালক সুজল মিয়ার। ওই ছাত্রী স্কুলে যাওয়া আসার পথে সুজল তাকে প্রায়শই প্রেম নিবেদন করতো। ,

এক পর্যায়ে তাকে প্রেমের ফাঁদে ফেলে সুজল । সম্প্রতি বেড়ানোর কথা বলে ওই ছাত্রীকে নেত্রকোনার দুর্গাপুর উপজেলায় একটি হোটেলে নিয়ে যায় সুজল । সেখানে ভিকটিমের ইচ্ছের বিরুদ্ধে ধর্ষণ ও অন্তরঙ্গ আপত্তিকর মুহুর্তের ভিডিও ধারণ করেন সুজল। পরবর্তীতে আবারও শারিরীক সম্পর্ক স্থাপনের জন্য তাকে প্রস্তাব দেয় । এতে রাজি না হওয়ায় আগের ধারণকৃত ভিডিও ভাইরাল করে দিবে বলে হুমকি ও ভয়ভীতি দেখায় সুজল। ,

এক পর্যায়ে ওই ভিডিও হোটাসঅ্যাপ, মেসেঞ্জার, শেয়ারইটের মতো সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে বিভিন্ন জনের কাছে প্রেরণ করেন সুজল। ভূক্তভোগী ওই ছাত্রী বিষয়টি জানতে পেরে তা তার মাকে জানায়।,

পরে গত রবিবার (২৬ জুন) রাতে তার মা বাদী হয়ে পূর্বধলা থানায় ওই যুবকের বিরুদ্ধে নারী ও শিশু নির্যাতনসহ পর্ণোগ্রাফি আইনে একটি মামলা দায়ের করেন। ,

পূর্বধলা থানার অফিসার-ইন-চার্জ (ওসি) মোহাম্মদ সাইফুল ইসলাম জানান, মামলা রুজু করার পর আজ সোমবার (২৭ জুন) দুপুরে ভিকটিমকে ডাক্তারী পরীক্ষার জন্য নেত্রকোনা আধুুনিক সদর হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়েছে। ‘আসামিকে ধরতে পুলিশি অভিযান অব্যাহত রয়েছে।,



কোন মন্তব্য নেই:

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন