শিরোনাম :

10/trending/recent

Hot Widget

অনুসন্ধান ফলাফল পেতে এখানে টাইপ করুন !

প্রতিদিন লোকসান ৯০ কোটি টাকা, বাড়ছে জ্বালানি তেলের দাম

ঢাকা: দুই বছর ধরে বিশ্ববাজারে জ্বালানি তেলের দাম যে বাড়তি পরিস্থিতিতে ছিল তা আরও বাড়িয়ে দিয়েছে রাশিয়া-ইউক্রেন যুদ্ধ। যার প্রভাব বাংলাদেশেও পড়েছে। বিদ্যুৎ, জ্বালানি ও খনিজসস্পদ মন্ত্রণালয় বলছে, যুদ্ধের কারণে দেশের একমাত্র রাষ্ট্রীয় প্রতিষ্ঠান বাংলাদেশ পেট্রোলিয়াম করপোরেশন- বিপিসির দৈনিক লোকসান ২০ কোটি থেকে ৯০ কোটি টাকায় ঠেকেছে। এই পরিস্থিতিতে জ্বালানি তেলের দাম সমন্বয়ের চিন্তা করছে সরকার। আর সে ঘোষণা আগামী মাসেই আসতে পারে বলে জানিয়েছেন বিদ্যুৎ, জ্বালানি ও খনিজসস্পদ প্রতিমন্ত্রী নসরুল হামিদ।

শুক্রবার (১৭ জুন) নিজ বাসায় সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে এ তথ্য দেন বিদ্যুৎ, জ্বালানি ও খনিজসম্পদ প্রতিমন্ত্রী।

তিনি বলেন, ‘রাষ্ট্রায়ত্ত প্রতিষ্ঠান বাংলাদেশ পেট্রোলিয়াম করপোরেশন- বিপিসি প্রতিদিন ৯০ কোটি টাকা লোকসান গুনছে। এ ক্ষতি পূরণের জন্য জ্বালানির দামের সমন্বয় বিবেচনায় আসতে পারে।’ তিনি এ সময় ভারতে জ্বালানি তেলের দাম বাড়ানোর তথ্য তুলে ধরেন।,

প্রতিমন্ত্রী বলেন, ‘এপ্রিল মাসে প্রতি লিটারে ৫০ রুপি বাড়িয়ে জ্বালানি তেলের দাম সমন্বয় করেছে আমাদের প্রতিবেশী দেশ ভারত। এ সব বিবেচনায় নিয়েই ডিজেল ও অকটেনের দামে সমন্বয় আসতে পারে।’

প্রতিমন্ত্রী বলেন, ‘গত সাত বছরে বিপিসি ৫০ হাজার কোটি টাকার বিপুল মুনাফা করেছে। বর্তমান পরিস্থিতিতে সে লাভ-লোকসানের সমন্বয় করা হয়েছে।’

তিনি আরও বলেন, ‘বিদ্যুৎ ও জ্বালানি তেলের দাম বাড়ানো হলে তা সহনীয় পর্যায়ে থাকবে। এমন কিছু করা হবে না যা সাধারণ মানুষের জন্য বোঝা হয়ে দাঁড়ায়। তবে বিশ্ববাজারে দাম কমলে আবার কমানো হবে।’

নসরুল হামিদ বলেন, ‘পরিবহন মালিকসহ সংশ্লিষ্টদের সঙ্গে বৈঠক করে আগামী মাসে জ্বালানি তেলের দাম সমন্বয়ের ঘোষণা আসতে পারে।’

এর আগে, গত বুধবার (১৫ জুন) অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল পেট্রোলিয়ামের দাম বাড়ানোর কথা জানিয়েছিলেন। তিনি বলেছিলেন, ‘যখনই সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে তখনই গণমাধ্যমকে জানানো হবে।’

উল্লেখ্য, গত দুই বছর ধরে বিশ্ববাজারে জ্বালানি তেলের দাম ওঠানামা করছে। কিন্তু ইউক্রেন- রাশিয়া যুদ্ধ শুরু হওয়ার পর দাম বৃদ্ধিতে রেকর্ড করে জ্বালানি তেল। এর প্রভাব পড়ে বাংলাদেশের বাজারে। বিশ্ববাজারে দাম বৃদ্ধির কারণে দেশের একমাত্র তেল সরবরাহকারী প্রতিষ্ঠান বিপিসির লোকসান পৌঁছেছে ৯০ কোটিতে।

জ্বালানি বিভাগের তথ্য অনুযায়ী— এশিয়ার অন্যান্য দেশের তুলনায় বাংলাদেশে লিটারপ্রতি ডিজেলের দাম অনেক কম। জুনে ডিজেলের লিটারপ্রতি দাম যেখানে ৮০ টাকা, সেখানে ভারতে এখন বিক্রি হচ্ছে ১১০ টাকায়। একইভাবে পাকিস্তানে ৯৪ টাকা, নেপালে ১১৩ টাকা, শ্রীলংকায় ১০১ টাকা। এ ছাড়া সবচেয়ে দাম বেশি হংকংয়ে। দেশটিতে ২০৫ দশমিক ৫২ টাকায় ডিজেল বিক্রি হচ্ছে।,

from Sarabangla https://ift.tt/yTIvq9Z

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

0 মন্তব্যসমূহ
* Please Don't Spam Here. All the Comments are Reviewed by Admin.

Top Post Ad

Below Post Ad