শিরোনাম :

10/trending/recent

Hot Widget

অনুসন্ধান ফলাফল পেতে এখানে টাইপ করুন !

পদ্মা সেতু উদ্বোধন ২৫ জুন, যান চলাচল ২৬ জুন

ঢাকা: আগামী ২৫ জুন পদ্মা সেতু উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। এর পরদিন ২৬ জুন ভোর ৬টা থেকে পদ্মা সেতু যান চলাচলের জন্য খুলে দেওয়া হবে বলে জানিয়েছেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের।

বুধবার (৮ জুন) বেলা ১১টায় রাজধানীর বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে সেতু বিভাগ আয়োজিত পদ্মা সেতুর উদ্বোধন উপলক্ষে মতবিনিময় সভায় তিনি এ কথা জানান।

ওবায়দুল কাদের বলেন, ‘ছাত্রদলকে ব্যবহার করে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়কে অস্থিতিশীল করার চেষ্টা করা হচ্ছে। ছাত্রদলকে দিয়ে পঁচাত্তরের হাতিয়ার গর্জে উঠুক আরেকবার স্লোগান দেওয়ার পর ছাত্রলীগ কি বসে থাকবে? রাজপথ কাউকে ইজারা দেওয়া হয়নি। বিএনপিকে বলব বাড়াবাড়ি করবেন না। পরিণতি ভালো হবে না।’

তিনি বলেন, ‘বহিরাগত ও দুর্বৃত্তদের নিয়ে শেখ হাসিনাকে হত্যার হুমকি দেওয়ায় প্রতিরোধ করা হয়েছে। বিএনপির শান্তিপূর্ণ কোনো কর্মসূচিতে বাধা দেওয়া হচ্ছে না।’

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বলেন, ‘খালেদা জিয়াকে জড়িয়ে পদ্মা সেতুর ভিত্তি প্রস্তর স্থাপন বিষয়ে মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরের সাম্প্রতিক বক্তব্য রপকথার গল্প। `এ মিথ্যাচারের জবাব দিতে হবে।’

তিনি বলেন, ‘বিশ্বব্যাংককে আমন্ত্রন জানানো হয়েছে। তারা আসবে। জবাব দেবে কেন সেদিন এ সেতুতে বিনিয়োগ নিয়ে এমন করা হয়েছিল? শুধু পদ্মার দুপাড়ের মানুষ নয়, `পদ্মা সেতুর উপকারভোগী হবে গোটা বাংলাদেশের মানুষ।’

ওবায়দুল কাদের বলেন, ‘পদ্মা সেতুর উদ্বোধনকে লক্ষ রেখে অন্তর্ঘাতের চক্রান্ত আছে। চট্টগ্রামের সীতাকুণ্ডের অগ্নিকাণ্ড এমনই অন্তর্ঘাত কি না জানি না। সবাইকে সতর্ক থাকতে হবে।’

সকালে পদ্মা সেতুর উদ্বোধন উপলক্ষে সকালে দুই তীরের জেলা সমূহের সংসদ সদস্য, স্থানীয় জনপ্রতিনিধি এবং আওয়ামী লীগের নেতাদের মতবিনিময় সভায় এ সব কথা বলেন ওবায়দুল কাদের।

সেতু বিভাগের সচিব মঞ্জুর হোসেন বলেন, ‘আগামী ২৫ জুন পদ্মা সেতুর উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। তবে ওইদিনই পদ্মা সেতু সর্বসাধারণের জন্য উন্মুক্ত করা হবে না।’

মঞ্জুর হোসেন বলেন, ‘২৫ তারিখ পদ্মা সেতু পার হওয়ার জন্য অনেকের মধ্যে আগ্রহ আছে। প্রধানমন্ত্রী পদ্মা সেতু উদ্বোধন শেষে চলে আসার পর যে কোনো সময় প্রজ্ঞাপন দিয়ে বা গণবিজ্ঞপ্তি জারি করে জানিয়ে দেব কখন পদ্মা সেতু সর্বসাধারণের জন্য উন্মুক্ত করা হবে। সেটি হতে পারে পরদিন ভোর ৬টা বা ওইদিনই কোনো সময়।’

তিনি আরও বলেন, ‘পদ্মা সেতু উদ্বোধন উপলক্ষে ২টি অনুষ্ঠান হবে। একটি মাওয়া প্রান্তে, আরেকটি জাজিরা প্রান্তে।’

অনুষ্ঠানসূচি উল্লেখ করা বলা হয়—মাওয়া প্রান্তে হবে সুধী সমাবেশ। যেখানে শুধুমাত্র প্রধানমন্ত্রীই কথা বলবেন। এরপর তিনি মাওয়া প্রান্তে উদ্বোধনী ফলক ও ম্যুরাল উদ্বোধন করবেন। সবকিছু ঠিকঠাক থাকলে পদ্মা সেতু পার হয়ে সকাল ১১টায় তিনি জাজিরা প্রান্তের সমাবেশে যোগ দেবেন। সেখানেও একটি উদ্বোধনী ফলক ও ম্যুরাল উদ্বোধন করবেন। অনুষ্ঠানগুলো একসঙ্গে ৮টি বিভাগে, ৬৪ জেলায় সরাসরি সম্প্রচার করা হবে।,

পদ্মা সেতু উদ্বোধনের দিন আওয়ামী লীগের এ সমাবেশে ১০ লাখের বেশি মানুষের সমাগম ঘটবে বলে আশা করছে ক্ষমতাসীন দলটি।,

এরই মধ্যে পদ্মা সেতু দিয়ে পারাপারের জন্য অনুমোদিত যানবাহনের টোল নির্ধারণ করেছে সরকার। পদ্মা সেতু পারাপারে মোটরসাইকেলে ১০০ টাকা, কার ও জিপে ৭৫০ টাকা, পিকআপে এক হাজার ২০০ টাকা, মাইক্রোবাসে এক হাজার ৩০০ টাকা টোল পরিশোধ করতে হবে। বাসের ক্ষেত্রে ছোট বাস (৩১ আসন) এক হাজার ৪০০ টাকা, মাঝারি বাস (৩২ আসন বা এর বেশি) দুই হাজার টাকা, বড় বাসকে (থ্রি-এক্সেল) দুই হাজার ৪০০ টাকা টোল দিতে হবে।

এ ছাড়া ছোট ট্রাককে (পাঁচ টন পর্যন্ত) এক হাজার ৬০০ টাকা, মাঝারি ট্রাকে (পাঁচ টনের বেশি ও সর্বোচ্চ আট টন পর্যন্ত) দুই হাজার ১০০ টাকা, মাঝারি ট্রাক (আট টনের বেশি ও সর্বোচ্চ ১১ টন) দুই হাজার ৮০০ টাকা, ট্রাকে (থ্রি-এক্সেল পর্যন্ত) পাঁচ হাজার ৫০০ টাকা, ট্রেইলার (ফোর-এক্সেল পর্যন্ত) ছয় হাজার টাকা। ট্রেইলার (ফোর-এক্সেলের অধিক) ছয় হাজারের সঙ্গে প্রতি এক্সেলের জন্য এক হাজার ৫০০ টাকা যুক্ত হবে।,

অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ও আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের। উপস্থিত আওয়ামী লীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য জাহাঙ্গীর কবির নানক, সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য শাহজাহান খান, আব্দুর রহমান, কেন্দ্রীয় কার্যনির্বাহী সদস্য আবুল হাসানাত আবদুল্লাহ, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক কৃষিবিদ আ.ফ.ম বাহাউদ্দীন নাছিম, সংসদ সদস্য নাহিম রাজ্জাক, পানি সম্পদ উপমন্ত্রী এনামুল হক শামিম, প্রধানমন্ত্রীর বিশেষ সহকারী ও আওয়ামী লীগের দফতর সম্পাদক ব্যারিস্টার বিপ্লব বড়ুয়া,  আওয়ামী লীগের প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক ড. আবদুস সোবহান গোলাপসহ আওয়ামী লীগের বিভিন্ন পর্যায়ের নেতাকর্মী এবং সংসদ সদস্যরা।,

সভা পরিচালনা করেন আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক মীর্জা আজম।,

from Sarabangla https://ift.tt/YVHX9oI

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

0 মন্তব্যসমূহ
* Please Don't Spam Here. All the Comments are Reviewed by Admin.

Top Post Ad

Below Post Ad