বিদ্যুৎ সংকট: ২১ জুলাই জাতীয় কমিটির দেশব্যাপী বিক্ষোভ - Purbakantho

শিরোনামঃ

শনিবার, ৯ জুলাই, ২০২২

বিদ্যুৎ সংকট: ২১ জুলাই জাতীয় কমিটির দেশব্যাপী বিক্ষোভ

ঢাকা: স্বনির্ভর ও পরিবেশ বান্ধব জ্বালানি নীতির বদলে, আমদানি নির্ভর জ্বালানি নীতির কারণে দেশের বিদ্যমান বিদ্যুৎ সংকট তীব্র হয়েছে মন্তব্য করেছে তেল গ্যাস খনিজ সম্পদ ও বিদ্যুৎ বন্দর রক্ষায় জাতীয় কমিটি। এ পরিস্থিতিতে আগামী ২১ জুলাই দেশব্যাপী বিক্ষোভ কর্মসুচির ঘোষণা দিয়েছে জাতীয় কমিটি।

সারাদেশে বিদ্যুৎ পরিস্থিতি নিয়ে গতকাল শুক্রবার (৮ জুলাই) পুরানা পল্টন মুক্তি ভবনে বাংলাদেশের কমিউনিস্ট পার্টি (সিপিবি) কার্যালয়ে অনুষ্ঠিত এক সভায় এই ঘোষণা দেয় তেল গ্যাস খনিজ সম্পদ ও বিদ্যুৎ বন্দর রক্ষায় জাতীয় কমিটি।,

এ বিষয়ে নেতারা বলেন, স্বনির্ভর ও পরিবেশ বান্ধব জ্বালানি নীতির বদলে, আমদানি নির্ভর জ্বালানি নীতির কারণে দেশে বিদ্যুৎ সংকট তীব্র হয়েছে। দেশে গ্যাস সম্পদ ও নবায়নযোগ্য জ্বালানির উৎস থাকলেও কমিশন ভোগী এবং কতিপয় গোষ্ঠীকে লাভবান করতে জ্বালানি খাতকে আমদানি নির্ভর করা হয়েছে। তাই এর প্রতিবাদে আগামী ২১ জুলাই দেশব্যাপী বিক্ষোভ কর্মসুচি পালন করা হবে।,

নেতারা আরও বলেন, প্রতিবছর জনগণের দেওয়া করের হাজার হাজার কোটি টাকা ভর্তুকির নামে অপচয় করলেও সংকট এড়ানো যাচ্ছে না। এ পরিস্থিতিতে আবারও বিদ্যুৎ ও জ্বালানির দাম বৃদ্ধির অপচেষ্টাও চলছে। এ অপচেষ্টা রুখে দাঁড়াতে হবে।,

দেশের গ্যাস অনুসন্ধান, উত্তোলন, নবায়নযোগ্য জ্বালানি ব্যবহার, শিল্প কৃষিসহ ঘরে ঘরে সুলভে পরিবেশ বান্ধব বিদ্যুৎ দিতে জাতীয় কমিটির খসড়া প্রস্তাব এবং দেশপ্রেমিক বিশেষজ্ঞদের মতামতকে উপেক্ষা করে আমদানি নির্ভরতা আজ সংকট তৈরি করা হয়েছে, তার দায় সাধারণ জনগন নেবে না। এ দায় সরকারকেই নিতে হবে বলে মন্তব্য করেন নেতারা।,

সভায়জ্বালানি খাতের শ্বেতপত্র প্রকাশ, জ্বালানি অপরাধীদের চিহ্নিত ও আইনের লাইনের আওতায় আনার দাবি জানানো হয়। একইসঙ্গে দেশের বিদ্যুৎ পরিস্থিতি স্বাভাবিক করে জনজীবন, কৃষি শিল্প উৎপাদন স্বাভাবিক রাখতে সকল বিলাসি কার্যক্রম বন্ধের আহ্বান জানান হয়।,

জরুরি ভিত্তিতে দেশের স্থল ও সমুদ্র ভাগের গ্যাস অনুসন্ধান, উত্তোলন, নবায়নযোগ্য জ্বালানি ব্যবহারের পদক্ষেপ গ্রহণ এবং গ্যাস ক্ষেত্র থেকে যথাযথভাবে গ্যাস উত্তোলন, চুরি, অপচয় বন্ধেও সভায় থেকে আহ্বান জানান নেতারা।,

বর্তমান সংকটকে সামনে রেখে নানা মহল বিদ্যুৎ উৎপাদনের নামে হীন স্বার্থ উদ্ধারের প্রচেষ্টা চালাবে। এ বিষয়ে সতর্ক থেকে পরিবেশ বান্ধব জ্বালানির দাবি ও অপ্রয়োজনীয়, ক্ষতিকর প্রকল্প বন্ধের দাবিতে আন্দোলন অব্যাহত রাখতে সচেতন দেশবাসীর প্রতি আহ্বান জানান হয়।,

সভায় জাতীয় কমিটির সংগঠক ও সাবেক সদস্য সচিব অধ্যাপক ড. এম এম আকাশের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সভায় বক্তব্য রাখেন সংগঠনটির সংগঠক রুহিন হোসেন প্রিন্স, বজলুর রশীদ ফিরোজ, জোনায়েদ সাকী, নজরুল ইসলাম, ডা. হারুন অর রশীদ, আকবর খান, মাসুদ রানা, বিধান দাস, মফিজুর রহমান লালটু, খান আসাদুজ্জামান মাসুম, বাচ্চু ভূঁইয়া, তৈমুর খান অপু, অনুপ কুণ্ডু, মোফাজ্জল হোসেন মোস্তাক, সাদেক খান ও রাজু আহমেদসহ আরও অনেকে।,

from Sarabangla https://ift.tt/b74cnUK

কোন মন্তব্য নেই:

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন