ইদের ছুটিতে খাগড়াছড়ির পর্যটনকেন্দ্রে ভিড় - Purbakantho

শিরোনামঃ

বুধবার, ১৩ জুলাই, ২০২২

ইদের ছুটিতে খাগড়াছড়ির পর্যটনকেন্দ্রে ভিড়

খাগড়াছড়ি: ইদ কিংবা পার্বণ, যেকোনো উৎসব-আয়োজনেই পর্যটকদের ঢল নামে পাহাড়ে। নাগরিক জীবনের ক্লান্তি আর অবসাদ দূর করতে পরিবার-পরিজন নিয়ে খাগড়াছড়ি ভ্রমণে আসেন দেশি-বিদেশি পর্যটকরা। এবারের ইদেও এর ব্যতিক্রম হয়নি। পর্যটকদের পদচারণায় মুখর হয়ে উঠেছে খাগড়াছড়ির পর্যটন কেন্দ্রগুলো। ইদের পরদিন থেকে বাড়তে শুরু করেছে ভ্রমণপিপাসুদের ভিড়। চাঙ্গা হয়ে উঠেছে পর্যটন নির্ভর ব্যবসা-বাণিজ্য।
পর্যটকদের ভ্রমণ নিরাপদ রাখতে নেওয়া হয়েছে বাড়তি নিরাপত্তা ব্যবস্থা। ঢাকার নবাবপুর হতে আসা ফায়সাল কবির জানান, বাংলাদেশের পাহাড়ি জনপদ মানেই বৈচিত্র্যের বসতবাড়ি। কোথাও নিবিড়-নিসর্গের, কোথাও বা জীবনশৈলীর। পাহাড়-ঝরনা আর নৈসর্গিক সৌন্দর্যরে কারণে পর্যটকদের কাছে বরাবরই আকর্ষণীয় নিসর্গ ধন্য খাগড়াছড়ি পার্বত্য জেলা। এসে ভালো লাগছে ক্লান্তি ও অবসাদ দুর হয়েছে।,
কুমিল্লার লাকসামের হাসনা হেনা জানান, তিনি তার পরিবারের  সদস্যদের নিয়ে বেড়াতে এসেছেন খাগড়াছড়িতে। একগুঁয়ে জীবনের ক্লান্তি দূর করতে ইদের ছুটিতে তার মতো অনেকেই বেড়াতে এসেছেন পাহাড়ে। কেউবা সবুজ পাহাড় আর মেঘের মিতালী দেখে মুগ্ধ, কেউবা গা ভেজাচ্ছেন রিছাং ঝরনা শীতল জলধারায়। আবার কেউ কেউ অ্যাডভেঞ্চারে নেমেছেন রহস্যময় আলুটিলা সুড়ঙ্গে। আর মুঠোফোনে বন্দি করছেন প্রিয় মুহূর্তটি। রাজশাহীর নওগাঁ থেকে আসা ফারজানা লাভনী বলেন, খাগড়াছড়ির নান্দনিকতাকে এবার আরও বেশি বর্ণিল এবং আরও বেশি নয়নাভিরাম করে তুলেছে আলুটিলা পর্যটন পার্ক। সবুজ পাহাড় আর রহস্যে ঘেরা সুড়ঙ্গ, দুয়ে মিলে এখানে যেন অপূর্ব সুন্দর মায়াজাল। আর জেলা পরিষদ পার্কের ঝুলন্ত ব্রিজ পর্যটকদের আনন্দ উপভোগে দিয়েছে পূর্ণতা।,
খাগড়াছড়ি পর্যটন মোটেলের ব্যবস্থাপক এ কে এম রফিকুল ইসলাম বলেন, মহামারি করোনার আগ্রাসনে গেল দু’বছর বেশ লোকসান গুনতে হয়েছে খাগড়াছড়ি পর্যটন সংশ্লিষ্ট ব্যবসায়ীদের। তবে আশার কথা হলো আগামী কয়েকদিন বেশ ভালো বুকিং রয়েছে। খাগড়াছড়িতে পর্যটকদের সংখ্যা আরও বাড়বে, আর এতে করে পুরনো ক্ষতি কিছুটা হলেও সারিয়ে উঠতে পারবেন। খাগড়াছড়ি টুরিস্ট পুলিশের অফিসার ইনচার্জ মো. আবুল কাসেম বলেন, পর্যটকদের ভ্রমণ নির্বিঘ্ন করতে কঠোর নিরাপত্তা বলয় রয়েছে খাগড়াছড়িতে, কাজ করছেন টুরিস্ট পুলিশের সদস্যরা।,

ইউনিফর্ম ছাড়াও সাদা পোশাকেও বিনোদনকেন্দ্রগুলোতে পুলিশ মোতায়েন রয়েছে। পাশাপাশি সকল গুরুত্বপূর্নস্থানে পুলিশের মোবাইল নম্বর রয়েছে। কোনো সমস্যা হলে দ্রুত সাড়া দেবে পুলিশ।,

The post appeared first on Sarabanglahttp://dlvr.it/STpb3s

কোন মন্তব্য নেই:

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন