দেশজুড়ে বৃষ্টির পূর্বাভাস, সঙ্গে তাপপ্রবাহ - Purbakantho

শিরোনামঃ

মঙ্গলবার, ২৩ আগস্ট, ২০২২

দেশজুড়ে বৃষ্টির পূর্বাভাস, সঙ্গে তাপপ্রবাহ

ঢাকা: একদিকে প্রবল বৃষ্টিপাতের পূর্বাভাস, অন্যদিকে তাপপ্রবাহ— আবহাওয়ার এই দ্বিমুখী আচরণ একসময় অস্বাভাবিক মনে হলেও এখন তা নিয়মিতই দেখা যাচ্ছে। বৃষ্টির পূর্বাভাস সত্ত্বেও এখনো দেশের সাত জেলার উপর দিয়ে তাপপ্রবাহ বয়ে যাচ্ছে। 

আবহাওয়া অধিদফতরের তথ্যমতে, দেশে সর্বোচ্চ তাপমাত্রা প্রায় ৩৭ ডিগ্রি ছুঁই ছুঁই। আর এই পরিস্থিতি আরও বাড়তে পারে। তবে এই উত্তপ্ত পরিস্থিতিতে কিছুটা হলেও স্বস্তি দিয়েছে সকালের বৃষ্টি। আবহাওয়ার পূর্বাভাস বলছে, এই বৃষ্টিপাতের আভাস দেশের আট বিভাগেই রয়েছে।,

আষাঢ়-শ্রাবণ বর্ষাকাল হলেও এই দুই মাসে তেমন বর্ষার দেখে মেলেনি এই বছর। কিন্তু সে তুলনায় ভাদ্র মাসে এসে বৃষ্টিপাতের পরিমাণ বাড়তি দেখা যাচ্ছে। গত ২৪ ঘণ্টায় রাজধানী ঢাকায় সর্বোচ্চ ২১ মিলিমিটার বৃষ্টিপাত হয়েছে যা বর্ষার দুই মাসে হয়নি। আবহাওয়া অধিদফতরের তথ্য অনুযায়ী ভাদ্রে বৃষ্টিপাতের প্রবণতা বেশি দেখা যাচ্ছে।,


আবহাওয়া অধিদফতরের তথ্যমতে, ঢাকার পরে র্সবোচ্চ বৃষ্টি হয়েছে নিকলিতে ১৭ মিলিমিটার। এছাড়া দেশের টাঙ্গাইল, রাজারহাট, নেত্রকোনা, শ্রীমঙ্গল, রাঙ্গামাটি, চট্টগ্রাম ও কক্সবাজারে বৃষ্টি হয়েছে। তবে তা খুব সামান্য পরিমাণে। আবহাওয়ার পূর্বাভাস বলছে, আগামী ২৪ ঘণ্টায় রংপুর, ঢাকা, ময়মনসিংহ, খুলনা, বরিশাল, সিলেট ও চট্টগ্রামের অনেক জায়গায় এবং রাজশাহী বিভাগের কিছু কিছু জায়গায় অস্থায়ীভাবে দমকা হাওয়াসহ হালকা থেকে মাঝারি ধরনের বজ্রবৃষ্টি হতে পারে। সেই সঙ্গে দেশের কোথাও কোথাও ভারি বর্ষণও হতে পারে।,


এদিকে রাজশাহী, পাবনা, নীলফামারি, কুড়িগ্রাম, খুলনা, যশোর এবং কুষ্টিয়া জেলার ওপর দিয়ে মৃদু তাপপ্রবাহ বয়ে যাচ্ছে। সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ৩৬ দশমিক ৯ ডিগ্রি সেলসিয়াস রেকর্ড করা হয়েছে রাজশাহীতে। এছাড়া সৈয়দপুর, রাজারহাট, ঈশ্বরদি, খুলনা, যশোর, কুমারখালীর তাপমাত্রা ৩৬ ডিগ্রি সেলসিয়াস। আর ৩৫ ডিগ্রির উপরে তাপমাত্রা রয়েছে টাঙ্গাইল, ফরিদপুর, গোপালগঞ্জ, বগুড়া, বদলগাছী, তাড়াশ, রংপুর, দিনাজপুর, সৈয়দপুর, তেতুলিয়া, ডিমলা, ময়মনসিংহ, নেত্রকোনা, সিলেট, সীতাকুন্ড, কুমিল্লা, চাঁদপুর, মাইজদিকোর্ট, ফেনী, মোংলা, সাতক্ষীরা, চুয়াডাঙা, কুমারখালি, ভোলা জেলাগুলোতে।,


এ প্রসঙ্গে আবহাওয়াবিদ এ কে এম নাজমুল হক জানিয়েছেন, এই পরিস্থিতিতে রাত ও দিনের তাপমাত্রায় কোনো পরিবর্তন আসবে না, বরং তাপমাত্রা আরও বাড়বে।,


এদিকে ভারতে যে স্থল নিম্মচাপটির সৃষ্টি হয়েছিল সেটি এখনো মধ্যপ্রদেশেই অবস্থান করছে। মৌসুমী বায়ুর অক্ষ রাজস্থান, হরিয়ানা, স্থল নিম্মচাপটির কেন্দ্রস্থল বিহার, পশ্চিমবঙ্গ ও বাংলাদেশের মধ্যাঞ্চল হয়ে আসাম পর্যন্ত বিস্তৃত। এর একটি বর্ধিতাংশ উত্তর পূর্ব বঙ্গোগসাগরে অবস্থান করছে। মৌসুমী বায়ু বাংলাদেশের ওপরে মোটামুটি সক্রিয় বলে জানিয়েছে আবহাওয়া অধিদফতর।,



from  Sarabangla https://ift.tt/rk3Z6Cj

কোন মন্তব্য নেই:

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন