‘তেলের দাম বাড়ানো জনগণের বিরুদ্ধে যুদ্ধ ঘোষণার সামিল’ - Purbakantho

শিরোনামঃ

শনিবার, ৬ আগস্ট, ২০২২

‘তেলের দাম বাড়ানো জনগণের বিরুদ্ধে যুদ্ধ ঘোষণার সামিল’

বিপ্লবী ওয়ার্কার্স পার্টির সাধারণ সম্পাদক সাইফুল হক বলেছেন, আকস্মিকভাবে সবধরনের জ্বালানি তেলের দাম অস্বাভাবিক বাড়ানোর সরকারি পদক্ষেপকে ‘অবিশ্বাস্য ও অকল্পনীয়’ হিসাবে আখ্যায়িত করেছেন। তিনি এর তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়েছেন বলেছেন, এটা চরম ভোগান্তিতে থাকা জনগণের বিরুদ্ধে যুদ্ধ ঘোষণার সামিল। 


এই সিদ্ধান্ত দ্রব্যমূল্যের লাগামহীন ঊর্ধ্বগতিতে নাকাল দেশের মানুষের উপর নতুন করে অকল্পনীয় গজব চাপিয়ে দেবে। শনিবার (৬ আগস্ট) গণমাধ্যমে পাঠানো এক বিবৃতিতে তিনি এ সব কথা বলেন। বিবৃতিতে তিনি বলেন, ‘আইএমএফ’র ঋণ পেতে তাদের খুশি করতে যেয়ে জনগণের ওপর জ্বালানি তেলের আকস্মিক মূল্যবৃদ্ধির এই হটকারী সিদ্ধান্ত দেশবাসী কোনোভাবেই মেনে নেবে না।,


বিইআরসি গণশুনানির প্রচলিত পদ্ধতিকে পাশ কাটিয়ে চোরাগোপ্তা কায়দায় ডিজেল, কেরোসিন, পেট্রোল ও অকটেনের মূল্যবৃদ্ধির ঘোষণা দেওয়া হয়েছে। সরকারি এই সিদ্ধান্তের মারাত্মক অভিঘাত পড়বে প্রতিটি ঘরে ঘরে এবং জাতীয় অর্থনীতিতে। ফলে শিল্প, কৃষি পরিবহনসহ অর্থনীতির প্রতিটি খাত বিপর্যয়ের সম্মুখীন হবে।, 


নতুন করে কয়েক কোটি মানুষ দারিদ্র্য সীমার নিচে নেমে যাবে।’ তিনি আরও বলেন, ‘আন্তর্জাতিক বাজারে ব্যারেলপ্রতি তেলের দাম ৯৪ ডলারে নেমে আসা ও খাদ্যশস্যের দাম যখন কমতে শুরু করেছে তখন জ্বালানি তেলের মূল্যবৃদ্ধির এই সিদ্ধান্ত কোনোভাবেই গ্রহণযোগ্য নয়। গত কয়েক বছরে বিপিসি ৫০ হাজার কোটি টাকা মুনাফা করেছে। এর একটি বড় অংশ সরকারি কোষাগারে জমা হয়েছে।, 


এই টাকা থেকে এখন প্রয়োজনে জ্বালানি খাতে ভর্তুকি দেওয়ার সুযোগ রয়েছে। সাইফুল হক অনতিবিলম্বে জ্বালানি তেলের মূল্য বৃদ্ধির এই হটকারী ও গণবিরোধী সিদ্ধান্ত বাতিলের দাবি জানান। সেইসঙ্গে তিনি সরকারের এই অন্যায় সিদ্ধান্তের বিরুদ্ধে প্রতিবাদে সোচ্চার হতে দেশবাসীর প্রতি আহ্বান জানান।, 


 post  appeared first on Sarabangla http://dlvr.it/SW9CKQ

কোন মন্তব্য নেই:

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন