নর্দমার উন্নয়নে পরামর্শকের পেছনে খরচ হবে ৫ কোটি টাকা - Purbakantho

শিরোনামঃ

সোমবার, ১৯ সেপ্টেম্বর, ২০২২

নর্দমার উন্নয়নে পরামর্শকের পেছনে খরচ হবে ৫ কোটি টাকা

ঢাকা: নর্দমা-ফুটপাত উন্নয়ন প্রকল্পে পরামর্শক ব্যয় হবে ৪ কোটি ৯৭ লাখ ৬২ হাজার টাকা। তবে এ খাতে ব্যয়ের প্রস্তাব ছিল আরও অনেক বেশি। পরিকল্পনা কমিশনের আপত্তির মুখে ব্যয় কমিয়ে এটি করা হয়েছে। তবে প্রকল্প সংশ্লিষ্টরা বলছেন, শুধু নর্দমা বা ফুটপাত নয়, এর সঙ্গে দৃষ্টিনন্দন আর্চ ব্রিজ নির্মাণ এবং সার্ভিস প্যাসেজ নির্মাণ করা হবে।

ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশন এলাকার অঞ্চল-২ ও অঞ্চল-৪ এর ক্ষতিগ্রস্ত সড়ক অবকাঠামোসহ অঞ্চল-২ ও অঞ্চল-৫ এর সার্ভিস প্যাসেজসমূহের উন্নয়ন প্রকল্পে এমন প্রস্তাব করা হয়েছে। প্রকল্পটির মোট ব্যয় ধরা হয়েছে ৯৬৩ কোটি ২৯ লাখ ৭২ হাজার টাকা। এর মধ্যে সরকারি তহবিল থেকে ৭৭০ কোটি ৬৩ লাখ ৭৭ হাজার টাকা এবং ডিএনসিসির নিজস্ব তহবিল ১৯২ কোটি ৬৫ লাখ ৯৪ হাজার টাকা ব্যয় করা হবে।,


পরিকল্পনা প্রতিমন্ত্রী ড. শামসুল আলম সারাবাংলাকে বলেন, ‘এ রকম প্রকল্পের জন্য এত পরামর্শক কেন লাগবে, সেটিই বুঝতে পারছি না। স্বাধীনতার ৫০ বছরে আমাদের কর্মকর্তাদের এই দক্ষতা কেন গড়ে উঠলো না সেটিই বড় প্রশ্ন। এই সমস্ত ব্যয় আরও ভালোভাবে যাচাইবাছাই করা উচিত।’


পরিকল্পনা কমিশনের একাধিক দায়িত্বশীল কর্মকর্তা সারাবাংলাকে বলেন, ‘স্থানীয় সরকার বিভাগ থেকে প্রস্তাব পাওয়ার পর চলতি বছরের ৩ মার্চ অনুষ্ঠিত হয় প্রকল্প মূল্যায়ন কমিটির (পিইসি) সভা। ওই সভায় দেওয়া সুপারিশগুলো প্রতিপালন করায় প্রকল্পটি জাতীয় অর্থনৈতিক পরিষদের নির্বাহী কমিটির (একনেক) আগামী বৈঠকে উপস্থাপনের সুপারিশ করা হয়েছে। অনুমোদন পেলে ২০২৫ সালের জুনের মধ্যে এটি বাস্তবায়ন করবে ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশন (ডিএনসিসি)।’


প্রকল্প প্রস্তাবে বলা হয়েছে, মেগা শহর ঢাকার উত্তর পাশের ৩৬টি ওয়ার্ড নিয়ে ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশন (ডিএনসিসি) ২০১১ সালে যাত্রা শুরু করে। অতিরিক্ত ১৮টি ওয়ার্ড ২০১৮ সালে সংযুক্ত হয়ে মোট ৫৪টি ওয়ার্ড নিয়ে ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশন গঠিত, যা দশটি অঞ্চলে বিভক্ত এবং আয়তন ১৯৬.২২ বর্গকিলোমিটার। ডিএনসিসির আওতায় ১ হাজার ৩৪০ কিলোমিটার সড়ক এবং ১২০০ কিলোমিটার ড্রেনেজ নেটওয়ার্ক বিদ্যমান। এগুলো সাধারণত চার থেকে পাঁচ বছর পর পর রক্ষণাবেক্ষণ করা প্রয়োজন।,


অন্যদিকে, দুর্বল ড্রেনেজ ব্যবস্থা সড়কের অবস্থা দ্রুত খারাপ করে ফেলে। প্রতি বছরে মাত্র ৭০ থেকে ৮০ কিলোমিটার রাস্তা ডিএনসিসির নিজস্ব তহবিল থেকে উন্নয়ন করা সম্ভব হলেও প্রয়োজনীয় তহবিলের ঘাটতিজনিত কারণে অধিকাংশ ক্ষতিগ্রস্ত রাস্তা মেরামতবিহীন থাকে এবং জনভোগান্তি হয়। ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের আওতাধীন এলাকায় ড্রেনেজ ব্যবস্থা উন্নয়ন করা, পথচারীদের জন্য ফুটপাত সুবিধাসহ কার্যকরী ও নিরাপদ সড়ক নেটওয়ার্ক গড়ে তোলার জন্য প্রকল্পটি নেওয়ার প্রস্তাব করা হয়েছে।,


প্রকল্পের মূল কার্যক্রম হচ্ছে, ১২১.৮৭ কিলোমিটার সড়ক উন্নয়ন, ২১৯.১০ কিলোমিটার নর্দমা ও সার্ভিস প্যাসেজ উন্নয়ন, একটি সেকেন্ডারি ট্রান্সফরমার স্টেশন নির্মাণ, ৮০.২৬ কিলোমিটার ফুটপাত এবং ৬টি দৃষ্টিনন্দন আর্চব্রিজ নির্মাণ করা হবে।,



from Sarabangla https://ift.tt/a2CXrfD

কোন মন্তব্য নেই:

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

পৃষ্ঠাসমূহ