শিরোনাম :

10/trending/recent

Hot Widget

অনুসন্ধান ফলাফল পেতে এখানে টাইপ করুন !

মরুর বুকে হচ্ছে বহুতল বন

ইতালি ও চীনে বনের মতো গাছপালায় আচ্ছাদিত বহুতল ভবন দেখা গেছে। এবার একই পথে হাঁটছে মিসর। তাদের নতুন রাজধানীর এই প্রকল্প হবে মরুভূমির বুকে প্রথম কৃত্রিমভাবে গড়ে তোলা উল্লম্ব বন।
কায়রোর পূর্বে মরুভূমিতে চলমান এই প্রকল্প আফ্রিকা মহাদেশের মধ্যেও প্রথম। ইতালীয় স্থপতি ও নগর-পরিকল্পনাবিদ স্তেফানো বোয়েরি, মিসরীয় নকশাবিদ সিমা সালাস ও ইতালীয় স্থপতি লরা গাতি সমন্বিতভাবে তিনটি সাততলা ভবনে এই বন সৃষ্টির নকশা করেছেন।
ভবনগুলোতে স্তরে স্তরে ৩৫০টি গাছ লাগানো হবে। থাকবে শতাধিক প্রজাতির ১৪ হাজার গুল্ম। তিনটি ভবনের একটি হবে হোটেল, দুটি আবাসিক। মিসরের পরিকল্পিত নতুন প্রশাসনিক রাজধানীতে মন্ত্রণালয়, দূতাবাস, আবাসিক এলাকা গড়ে তোলা হবে। থাকবে অর্থনৈতিক এলাকা।
বোয়েরি বলেন, কয়েকশ’ বর্গমিটার এলাকায় কয়েক হাজার বর্গমিটারব্যাপী এই বন হবে। বনে পাখি ও পোকামাকড় থাকবে। এসব গাছ, গুল্ম কার্বন ডাই-অক্সাইড শোষণ করবে এবং অক্সিজেন ছাড়বে। এতে বাতাসে ধুলার পরিমাণ কমে যাবে। ইতালির মিলানের বস্কো ভার্টিকাল টাওয়ারের নকশা অনুযায়ী এই পরিকল্পনা করা হয়েছে।
চীনের দক্ষিণাঞ্চলের গুয়াংঝি প্রদেশে নির্মাণাধীন লিউঝো ফরেস্ট সিটি পরিকল্পনাবিদও বোয়েরি। নেদারল্যান্ডসে বোয়েরি ১৯ তলাবিশিষ্ট ট্রুডো ভার্টিকাল ফরেস্টের নকশা করেছেন। রয়টার্স।

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

0 মন্তব্যসমূহ
* Please Don't Spam Here. All the Comments are Reviewed by Admin.

Top Post Ad

Below Post Ad